Friday , November 27 2020
Breaking News
Home / Education / ২০২১ এর এসএসসি ও অটোপাস হতে পারে

২০২১ এর এসএসসি ও অটোপাস হতে পারে

ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে গেলে নভেম্বর এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণ করতে হয়। নির্বাচনি পরীক্ষা নিয়ে এরপর ফরম পূরণ করার সুযোগ দেয়া হয়ে থাকে শিক্ষার্থীদেরকে। তবে যদি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি যদি আরও বাড়ে তাহলে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ফরম পূরণ নিয়ে সৃষ্ট হবে নতুন জ’টি’ল’তা।

প্রতিবছর ১ ফেব্রুয়ারি থেকে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। তার অন্তত তিন মাসে অনুষ্ঠিত হয় নির্বাচনী পরীক্ষা। তবে এ বছর অক্টোবর মাস শেষ হতে চললেও এখনো নির্বাচনী পরীক্ষা নেয়ার সম্ভবনাও তৈরি হয়নি। নির্বাচনী পরীক্ষা কবে হবে তা নিয়েও আছে অনিশ্চিয়তা। স্কুল খোলার আগে নির্বাচনী পরীক্ষা নেয়াও সম্ভব হচ্ছে না।

আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয়ক কমিটির প্রধান মো. জিয়াউল হক সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকার কারনে যথা সময়ে এসএসসি পরীক্ষা নেয়াটা বেশ চে’লে’ঞ্জিং হবে। তিনি বলেন, ‘’প্রতি বছর ফেব্রুয়ারিতে এসএসসি এবং এপ্রিলে এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। করোনাকালে প্রাতিষ্ঠানিক পাঠদান বন্ধ। সরাসরি পরীক্ষা কিংবা ক্লাস টেস্ট নেয়ার কোনো সুযোগ নেই। এ কারনে যথা সময়ে পরীক্ষা শেষ করাটা ক’ঠি’ন হয়ে দাঁড়াবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে পরীক্ষা ও ক্লাস সংক্রান্ত যেকোনো সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা যেতে পারে।‘

এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে ২০২১ খ্রিষ্টাব্দের এসএসসি পরীক্ষা নিয়ে জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, করোনার এ পরিস্থিতিতে শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের সুরক্ষিত রাখাই মুখ্য। তবে, এ মুহুর্তে এ বিষয়ে কিছুই জানানো যাচ্ছেনা। সরকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে। আমরা টেকনিক্যাল পরামর্শক কমিটির সাথে যোগাযোগ করছি। এ বিষয়ে পরে জানানো হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষামন্ত্রী জানান, আমরা টেকনিক্যাল পরামর্শক কমিটির সাথে যোগাযোগ করছি।

কিছু দেশে স্কুল খুলে দিয়েছিল, এখন বন্ধ করে দিচ্ছে। আর শীত নিয়ে সবারই শঙ্কা আছে। বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে গত মার্চ থেকে বন্ধ রয়েছে স্কুল-কলেজগুলো। বাতিল হয়েছে চলতি বছরের প্রাথমিক সমাপনী, জেএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা। আসছে শীতে শুরু হচ্ছে করোনার দ্বিতীয় ঢেই। শীতের কারণে করোনার প্রাদুর্ভাব বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন স্বাস্থ্যবিদরা।

অন্যদিকে আটকে আছে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের নির্বচনী পরীক্ষাও। ফলে এ নিয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরাও দুশ্চিন্তায়। অবস্থার খুব একটা উন্নতি না হলে নেয়া হবে না পরীক্ষাও। তাই এসএসসি পরীক্ষা নিয়েও অনিশ্চিয়তা দেখা দিয়েছে তাদের মাঝে। এদিকে স্কুল খোলার আগে নির্বাচনী পরীক্ষা নেয়া সম্ভব না বলে মন্তব্য করেছেন আন্তঃশিক্ষাবোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি ও ঢাকা বোর্ডের চেয়ারম্যান মু. জিয়াউল হক। তিনি বলেন, গত সাত থেকে আট মাস পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো কার্যত ছুটি।

ফলে এ নিয়ে আরও চিন্তা ভাবনা করতে হবে। এখনই এ বিষয়ে কিছু বলা যাচ্ছেনা। করোনা ভাইরাস সংক্রমণের এ পরিস্থিতিতে চলতি বছর এসএসসি পরীক্ষা হচ্ছে না। জেএসসি ও প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষা হচ্ছে না। এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে মূল্যায়ন করা হবে। এদিকে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের দাবি, তাদেরও পরীক্ষা ছাড়াই মূল্যয়ন করা হোক। যদিও পরীক্ষা না নিয়ে মূল্যায়নের তীব্র বিরোধিতা করেছেন শিক্ষাবিদরা।

About khan

Check Also

৫০০মধ্যে ৪৯৯ নম্বর পেল রেকর্ড করলেন উচ্চমাধ্যমিকের ছাত্রী স্রোতশ্রী

পাঁচশ নম্বরের মধ্যে পেয়েছেন ৪৯৯ নম্বর। উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায় অভাবনীয় সাফল্য পেয়েছে স্রোতশ্রী রায় নামে এক ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page