Friday , December 4 2020
Breaking News
Home / দেশ-বিদেশ / বিরল ক্যান্সার সারিয়ে চিকিৎসা বিজ্ঞানে নজির কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের

বিরল ক্যান্সার সারিয়ে চিকিৎসা বিজ্ঞানে নজির কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের

মিরাকেলই বটে! ফুসফুস ক্যান্সারের অন্তিম পর্যায়ে পৌঁছেও মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে এলেন সোমা। ক্যান্সার চিকিৎসায় কার্যত নজির গড়ল কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, কিছুদিন আগেই বিরল এক ফুসফুসের ক্যান্সার (Non squamous lung cancer)ধরা পড়ে হাওড়া বাগনানের বাসিন্দা সোমা দোলুই-এর।

ততদিনে ক্যান্সার ছড়িয়ে পড়েছে শরীরের হাড় থেকে শুরু করে লিভারে। তবু হাল ছাড়েননি চিকিৎসকরা। শুরু হয় ওষুধ প্রয়োগ। ক্রিজোটিনিব গ্রুপের ওষুধ প্রয়োগ করে ৩ মাস টানা ওষুধ চলার পর ৫০ শতাংশ সেরে ওঠেন সোমা। যা দেখে কার্যত অবাক চিকিৎসকরাও।

বিভাগীয় প্রধান শিবাসিস ভট্টাচার্য বলেন, “৬ মাস ক্রিজোটিনিব গ্রুপের ওষুধ প্রয়োগ করার পর হাড়, লিভারে ছড়িয়ে পড়া ক্যান্সার পুরোটাই সেরে গিয়েছে। ফের যাতে সোমার শরীরে ক্যান্সার ফিরে না আসে তার চেষ্টা চালাচ্ছি আমরা।” হাসপাতাল সূত্রে খবর, এহেন বিরল ক্যান্সারের চিকিৎসা বা ওষুধের খরচ ছিল ব্যয়বহুল, যার ব্যয়ভার রোগীর পরিবারের পক্ষে বহন করা সম্ভব ছিল না।

এরপরই সোমার চিকিৎসার জন্য হাসপাতালের তরফে স্বাস্থ্যভবনের সঙ্গে কথা বলা হয়। ৯ লক্ষটাকা বরাদ্দ করে স্বাস্থ্যভবন। সব মিলিয়ে চিকিৎসকদের চেষ্টায় এবং স্বাস্থ্য দফতরের সহযোগীতায় মৃত্যুর মুখ থেকে ফিরে আসেন সোমা দোলুই। যা এখনও বিশ্বাসই করতে পারছেন না সোমা এবং তাঁর পরিবার।

অন্যদিকে ক্যান্সার চিকিৎসায় মাইলস্টোন গড়ে বিশ্বের দরবারে আলোচনার শীর্ষে পৌঁছে গিয়েছে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল। সোমার ক্যান্সার চিকিৎসার ‘কেস স্টাডি’ গিয়েছে আন্তর্জাতিক মেডিক্যাল জার্নালেও।

About khan

Check Also

মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুড়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন থা’নার ওসি

সাধারন মানুষের কল্যানে সব সময় কাজ করে যাচ্ছেন চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থা’নার অফিসার্স ইনচার্জ ওসি মাহবুবুর ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page