Saturday , November 28 2020
Breaking News
Home / Exception / জীবনে খারাপ সময় আসবেই, ভেঙে না পড়ে এই ১০টি কথা মনে রাখুন কাজে লাগবে

জীবনে খারাপ সময় আসবেই, ভেঙে না পড়ে এই ১০টি কথা মনে রাখুন কাজে লাগবে

সাফল্য অর্জনের দুর্গম পথ পাড়ি দেওয়ার সময় আম’রা এমন অবস্থার সম্মু’খীন ও হই যখন আমাদের সাথে সব কিছু খা’রাপ হয়। অবস্থাটা খানিকটা এমন “অভাগা যেদিকে চায় সাগর শুকিয়ে যায়!” আর জীবনের এই ক’ঠিন সময়টাতে আপনি যদি নিজেকে সামলে রাখতে না পারেন তাহলে এই অবস্থার মধ্য থেকে কখনোই বের হয়ে আসতে পারবেন না। তাই আজ আপনাদের বলবো আপনার সাথে যখন সব কিছু খা’রাপ আর ভুল হয় তখন যে বিষয়গুলো সব সময় মনে রাখবেন।

১. জীবনে সবকিছু সাময়িক: বৃষ্টি ঝরতে তো সবাই দেখেছেন। কখনো কি এমনটা দেখেছেন আজীবনের জন্য বৃষ্টি ঝরা শুরু হয়েছে? ঠিক একইভাবে জীবনে কোনকিছুই দীর্ঘস্থা’য়ী হয়না। তাই আপনার জীবনের খা’রাপ সময়গুলোতে দিশেহারা হবেন না। বিশ্বা’স করুন যে এই সময়ের শেষও আছে।

২. দু’শ্চিন্তা ও দোষারোপ কোনটাই কিছু বদলাতে পারেনা: এমন অনেকেই আছেন যে তাদের সাথে খা’রাপ কিছু ঘটলেই তারা ঠিক কাউকে বা নিজেকে দোষারোপ করবে। কিংবা দু’শ্চিন্তা করে খা’রাপ সময় আরও খা’রাপ করে তুলবে। কথা হচ্ছে আপনি একটি বারও কি ভেবে দেখেছেন আপনার এই আচরণ আপনার স’মস্যা সমাধানে কতটুকু সাহায্য করেছে? তাই আর দোষারোপ বা দু’শ্চিন্তা নয় বরং এই অব’স্থায় নিজেকে সামলে রাখু’ন।

৩. কিছু জিনিস ঠিকই সঠিক হচ্ছে: অন্ধকারের শেষে যেমন আলো লুকায়িত থাকে একইভাবে আপনার খা’রাপ সময়গুলোর পেছনে নিশ্চয় সঠিক কিছু ঘটছে। এখানে আপনাকে শুধু একটু আপনার সহ্যশ’ক্তি বাড়াতে হবে। আর তাই এমন সময়ে শুধুমাত্র খা’রাপ জিনিসের প্রতি লক্ষ্য না করে দেখু’ন কি ভালো ঘটছে আপনার জন্য সেটা সামান্য পরিমাণই হোক না কেন।

৪. আপনি এটা সামলাতে পারেন: সময় যত খা’রাপই হোক না কেন আপনি সব সময় এটি বিশ্বা’স করুন যে আপনি এটা সামলাতে পারেন। জীবন আপনার আর স’মস্যাও আপনার তাই স’মস্যা থেকে বের হয়ে আসার উপায়ও আপনাকেই জানতে হবে। তাই নিজে’র প্রতি বিশ্বা’স কখনো হারাবেন না।

৫. আপনার নিজে’র প্রতি যত্নবান হতে হবে: যখন সবকিছু আপনার সাথে খা’রাপ হয় তখন নিজে’র প্রতি যত্নবান হন। কেননা এই খা’রাপ সময়ের সবটা আপনাকেই অতিক্রম ক’রতে হবে। আর নিজেই যদি ঠিক না থাকেন তাহলে এই সময় শেষ হওয়ার আগেই হয়তো আপনি নিজেই শেষ হয়ে যাবেন। তাই ঠিক মতো খাওয়া দাওয়া করার পাশাপাশি বিশ্রাম করুন ও আপনার প্রিয় মানুষগুলোর সাথে সময় অতিবাহিত করুন।

৬. আবেগ ধ’রে রাখবেন না: বিশেষ করে পুরুষদের মধ্যে নিজে’র আবেগ লুকানোর প্র’বণতাটা বেশি দেখা যায়। যত কষ্টই আসুক তা তারা নিজে’র মধ্যেই চে’পে রাখেন। এর ফল হয় মা’রাত্মক। মা’নসিক অসু’স্থতা থেকে শুরু করে আত্মহ’ত্যা পর্যন্ত গড়ায় এর প’রিণতি। তাই ক’ঠিন সময়গুলোতে নিজে’র আবেগ চে’পে রাখবেন না। পরিবার বা কাছের ব’ন্ধুদের সাহায্য নিন। সময় বয়ে যাওয়ার সাথে সাথে অনেকটাই স্বা’ভাবিক হয়ে উঠবেন আপনি।

৭. খা’রাপ সময়কে মেনে নিন, এগিয়ে চলুন সামনে: মানুষের জীবনে ভাল এবং খা’রাপ দু’রকম সময়ই আসে। তাই ভালর পাশাপাশি খা’রাপকেও মেনে নিতে শিখু’ন। ভেঙ্গে না প’ড়ে সামনে এগিয়ে যান। যত তাড়াতাড়ি আপনি নিজে’র খা’রাপ সময়টিকে মেনে নিতে পারবেন, তা থেকে মু’ক্তি পাওয়া ততই সহজ হবে।

৮. ইতিবাচক চিন্তা করুন: ইতিবাচক চিন্তা জীবনের দুঃসময় পার করার অন্যতম হাতিয়ার। কখনোই আশা হারাবেন না। চাকরি চলে গেলে নিজেকে বোঝান নিশ্চয় এর চেয়ে ভাল চাকরি আপনার জন্য অপেক্ষা করছে, প্রিয়জন ছে’ড়ে চলে গেলে নিজেকে জা’নান, আপনার জন্য আ’সলেই উপযুক্ত এমন কারো দিকে এক পা এগিয়ে গেছেন।

৯. ভুলগুলো নিয়ে না ভেবে সঠিক প’রিকল্পনা করুন: আপনি কি হারিয়েছেন, কেন হারিয়েছেন, সেসব থাকলে কত ভালো হত এসব চিন্তা না করে ভবিষ্যতে আপনার কি কি অর্জন করার সম্ভাবনা আছে তা ভাবুন এবং সে অনুযায়ী নিজে তৈরি করুন। যা হারিয়েছেন তার জন্য অ’ভিযোগ না করে পুনরায় ফি’রে পাওয়ার চেষ্টা করুন।

১০. শিক্ষা নিন ক’ঠিন সময়গুলো থেকে: জীবনের ক’ঠিন মু’হূর্তগুলো থেকে শিক্ষা নিন। চাকরি হা’রানো, আর্থিক স’মস্যা, শা’রীরিক অসু’স্থতার সময়গুলোতেই বোঝা যায় আ’সলেই কে আপনার আপনজন আর কে আপনার সাথে এতদিন অভিনয় করছিলো। এ শিক্ষা আপনাকে আজীবন সঠিক পথে চলতে সাহায্য করবে। তাই জীবনের ক’ঠিন সময়গুলোকে অভিশাপ নয় বরং আশীর্বাদ হিসেবে দেখু’ন।

কথায় আছে “যে সহে সে রহে।” জীবনের এক একটি খা’রাপ সময়কে আপনার জীবনের সাফল্যর একেকটা সিঁড়ি ভাবুন। দেখবেন আপনি খুব সহজেই খা’রাপ সময় পার করে দিতে পারবেন।

About khan

Check Also

দ্বিতীয় বার বিয়ের পিঁড়িতে গৌরব, তার আগে এক স্ত্রীর বাড়িতেই প্রথম আইবুড়ো ভাত খেলেন অভিনেতা

টলি পাড়া এখন সরগরম অভিনেত্রী দেবলীনা কুমার (devlina kumar) ও গৌরব চ‍্যাটার্জির (gourab chatterjee) আসন্ন ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page