Thursday , December 3 2020
Breaking News
Home / Exception / সৃজিতপত্নী মিথিলা এখন প্রসেনজিতের বাহুডোরে!

সৃজিতপত্নী মিথিলা এখন প্রসেনজিতের বাহুডোরে!

তাহসানের সঙ্গে ছাড়াছাড়ির পর কলকাতার জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জির সঙ্গে দ্বিতীয় সংসার পাতেন বাংলাদেশের মডেল, অভিনেত্রী ও উপস্থাপিকা রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। মিথিলার মতো সৃজিতেরও এটি ছিল দ্বিতীয় বিয়ে।

সৃজিত-মিথিলার বিয়ের পর বেশ কিছু ছবি সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছিল। নবদম্পতির সেসব ছবি নিয়ে প্রশংসা করেছেন অনেকেই। অনেকেই আবার কটাক্ষ ও আপত্তিকর মন্তব্যও করেছেন কমেন্ট বক্সে। তবে সবকিছু ছাপিয়ে এই তারকা দম্পতি সুখেই সংসার করছেন।

এরইমধ্যে টলিগঞ্জের কিংবদন্তি নায়ক প্রসেনজিৎকে ঘিরে সামনে এলো মিথিলার নাম। গেল ৩০ সেপ্টেম্বর ছিল প্রসেনজিতের জন্মদিন। এ উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইটারে দুজনের একটি ছবি পোস্ট করেন মিথিলা। ক্যাপশনে লিখেছিলেন- হ্যাপি বার্থডে প্রসেনজিৎ দা।

ওই ছবিতে মিথিলার পরনে ছিল গোল্ডেন পাড়ের মেরুন রঙের শাড়ি। খোলা চুল ও স্লিভলেস ব্লাউজে মিথিলাকে দারুণ মালিয়েছিল প্রসেনজিতের পাশে। প্রসেনজিতের পরনে ছিল অফহোয়াইট টি-শার্ট ও জিন্স। প্রসেনজিতের বাহুডোরে আবদ্ধ মিথিলার মুখে ছিল একরাশ সুখের হাসি।

মিথিলা সেই ছবি পোস্ট করার পরই জন্মদিনের শুভেচ্ছায় ভাসেন প্রসেনজিৎ।

২০০৪ সালে অভিনেতা ও সঙ্গীতশিল্পী তাহসানের সঙ্গে পরিচয় হয় বাংলাদেশের আলোচিত মডেল, অভিনেত্রী, উপস্থাপক রাফিয়াত রশিদ মিথিলার। এরপর প্রেম। ২০০৬ সালের ৩ আগস্ট তাহসানকে বিয়ে করেন মিথিলা।

২০১৩ সালের ৩০ এপ্রিল তাদের ঘর আলো করে এক কন্যা সন্তানের জন্ম হয়। কন্যার নাম রাখা হয় আইরা তাহরিম খান। কিন্তু দীর্ঘ ১১ বছরের সংসার জীবনের সমাপ্তি ঘটিয়ে ২০১৭ সালের জুলাইয়ে যৌথভাবে বিবাহবিচ্ছেদের ঘোষণা দেন এই তারকাদম্পতি।

২ বছর একা থাকার পর ২০১৯ সালের ৬ ডিসেম্বর কলকাতার জনপ্রিয় নির্মাতা সৃজিতের সঙ্গে দ্বিতীয় সংসার শুরু করেন মিথিলা।

বৈশ্বিক মহামারি নভেল ক’রোনা ভাই’রা’সের কারণে বেশ কয়েক মাস সৃজিতকে ছাড়াই থাকতে হয়েছে মিথিলাকে। গেল আগস্টের মাঝামাঝি স্বামীর সান্নিধ্য পেতে কলকাতায় ছুটে যান মিথিলা। এখন স্বামীর সঙ্গে সেখানেই আছেন এই অভিনেত্রী।

About khan

Check Also

পেয়াজের রসকে চুলে এইভাবে লাগালে চুল পড়া বন্ধ হয়ে চুল লম্বা হবে ১০ গুণ ।

আজকে আমি আপনাদেরকে এমন একটি রেমেড়ি তৈরি করে দেখাব এটি ব্যবহারে চুল হবে ঘন কালো ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page