Friday , December 4 2020
Breaking News
Home / Education / দুর্নীতি দমন কমিশন কর্মকর্তাদের পদমর্যাদা, প্রশিক্ষণ এবং সুযোগ-সুবিধা ও কাজের ধরণ

দুর্নীতি দমন কমিশন কর্মকর্তাদের পদমর্যাদা, প্রশিক্ষণ এবং সুযোগ-সুবিধা ও কাজের ধরণ

দুর্নীতি দমন কমিশন কর্মকর্তাদের পদমর্যাদা, প্রশিক্ষণ এবং সুযোগ-সুবিধা ও কাজের ধরণ ♦♠♦
লিখেছেন- দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক রেজাউল করিম

দুর্নীতি দমন কমিশন বাংলাদেশে দুর্নীতি দমন, নিয়ন্ত্রণ ও দুর্নীতি প্রতিরোধে গঠিত একটি স্বাধীন প্রতিষ্ঠান। ২০০৪ সালে দুর্নীতি দমন আইন অনুসারে দুর্নীতি দমন ব্যুরো থেকে স্বাধীন দুর্নীতি দমন কমিশন গঠন করা হয়। দেশজুড়ে দুদকের ২২ টি সমন্বিত জেলা কার্যালয় থেকে সকল কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। আরো ১৪ টি নতুন সমন্বিত জেলা কার্যালয়, কর্মী সংখ্যা দ্বিগুণ, দুদকের প্রধান কার্যালয়ের পাশে ২০ তলা বিশিষ্ট ভবন নির্মাণসহ দুদকের সম্প্রসারণ চলমান আছে।

👉👉পদমর্যাদা : দুদক আইন অনুসারে ৩ জন কমিশনারের সমন্বয়ে দুদক কমিশন গঠিত হয় (তাঁদের মধ্যে থেকে একজন চেয়ারম্যান নিযুক্ত হোন)। সাচিবিক দায়িত্ব সম্পাদনের জন্য একজন দুদক সচিব রয়েছেন।
♦১০ম গ্রেডের পদ থেকে দুদকের অর্গানোগ্রাম হলো- কোর্ট পরিদর্শক/উপসহকারী পরিচালক > সহকারী পরিচালক> উপ-পরিচালক> পরিচালক> মহাপরিচালক।

দুদকের সহকারী পরিচালক পদটি একটি নবম গ্রেডের প্রথম শ্রেণীর গেজেটেড পদ। সহকারী পরিচালক পদে যোগদানের পর কমিশনারের ক্ষমতাবলে কর্মকর্তাদের মামলা তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়।
👉👉প্রশিক্ষণ : দুদক কর্মকর্তা হিসেবে যোগদানের পর আপনাকে সাভারের লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে বা শাহবাগের বিসিএস প্রশাসন একাডেমিতে দুই মাসের স্পেশাল কোর্স করতে হবে। চাকরিকালীন সময়ে দেশে জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থা, কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট, ব্যাংকারস ট্রেনিং ইন্সটিটিউটে এবং দেশের বাইরে ভারতের সিবিআই, যুক্তরাষ্ট্রের এফবিআই, জাপান, মালয়েশিয়া, হংকং, ভুটান সহ বিভিন্ন দেশে বিভিন্ন সংস্থার সাথে প্রশিক্ষণের সুযোগ পাবেন।

👉👉সুযোগ সুবিধা ও কাজের ধরণ : অন্যন্য সরকারী দপ্তরগুলোর মতো সরকারি চাকুরীর সুযোগ সুবিধা সহ দুদকের কর্মকর্তা কর্মচারীদের জন্য রয়েছে ঝুঁকি ভাতা ও রেশন সুবিধা। দুদকের কর্মকর্তা হিসেবে দুর্নীতি দমন কার্যক্রম এর পাশাপাশি দুর্নীতি প্রতিরোধের জন্য বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সততা সংঘ, সততা স্টোর, দুর্নীতি সচেতনা সংক্রান্ত রচনা প্রতিযোগিতা, বিতর্ক প্রতিযোগিতা, সভা, সেমিনার, সিম্পোজিয়াম, সেবা গ্রহীতা ও সেবা দাতাদের নিয়ে গণশুনানি সহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনায় আপনাকে কর্মমুখর থাকতে হবে। এছাড়া বিভিন্ন বিভাগের তদন্ত কাজ করতে গিয়ে আপনাকে যেমন সব প্রতিষ্ঠানের আইন-বিধি ও কাজ সম্পর্কে জানতে হবে, তেমনি থাকতে হবে নিরলস পরিশ্রম করার মানসিকতা। মোট কথা, দুদক আপনাকে দেশের জন্য কাজ করার অনেক সুযোগের ক্ষেত্র তৈরি করে দিবে। তাই রাস্ট্রীয় সেবা করার সুযোগ এবং সম্মানজনক পেশা হিসেবে দুদকে আপনার ক্যারিয়ার গঠন করতে পারেন।

About khan

Check Also

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগঃ (Corona virus) নিয়ে সাম্প্রতিক প্রশ্ন উত্তর

Corona virus)সাম্প্রতিক প্রশ্ন (#collected) ১) করোনা ভাইরাস কত সালে আবিষ্কার হয়? উঃ ১৯৬০ ২) কোভিড-১৯ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page