Wednesday , September 22 2021
Breaking News

মা-বাবার বি’চ্ছেদ, আ’দালতের গেটে দুই শিশুর কা’ন্নায় বদলে গেল দৃশ্য

কুমিল্লার আ’দালতে মায়ের স’ঙ্গে বাবার বিচ্ছেদের পর মাকে ছেড়ে চলে যাওয়ার সময় দুই শি’শুর কা’ন্না নিয়ে আলোচনা সৃষ্টি হয়েছে। ম’ঙ্গলবার ‘বিকেলে আ’দালতের পূর্ব গেটের সড়কে এই দৃশ্য দেখা যায়। পরে আ’দালতের গেটে দায়িত্বে থাকা পু’লিশ শি’শুদের উ’’দ্ধার করে আইনজীবীদের কাছে নিয়ে যায়।

পু’লিশ ও আইনজীবীরা জানায়, জে’লার ব্রাহ্মণপাড়া উপজে’লার চান্দলা গ্রামের মনির হোসেনের স’ঙ্গে একই গ্রামের এক নারীর ১৪ বছর আগে বিয়ে হয়। তাদের আট’ বছরের একটি মে’য়ে ও ছয় বছরের একটি ছে’লে রয়েছে। সম্প্রতি পারিবারিক কলহে মনির হোসেন প্রবাস থেকে ওই নারীকে তালাক দেন।

ম’ঙ্গলবার রাতে কুমিল্লার নারী ও শি’শু নি’র্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-২ নম্বর আ’দালতের স্পেশাল পিপি মিজানুর রহমান বলেন, বি’ষয়টি নিয়ে আ’দালতে মা’মলা দায়ের করেন ওই নারী। পরে আ’দালত তার কাবিনের টাকা পরিশোধ ও শি’শুদেরকে তাদের বাবার পরিবারের কাছে হস্তান্তরের নির্দেশ দেন।

ম’ঙ্গলবার আ’দালত গেটে শি’শুদের দাদা ফরিদ মিয়া তাদের নিয়ে যেতে চাইলে শি’শুরা কা’ন্নাকাটি শুরু করে। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উ’’দ্ধার করেন। পরে কোর্ট পু’লিশের পরিদর্শক সালাউদ্দিন আল-মাহমুদ পুনরায় তাদেরকে আমা’দের নিকট নিয়ে আসেন। আম’রা দুই পক্ষকে বুঝিয়ে বলি এবং শি’শুদের আপাতত মায়ের নিকট হস্তান্তর করি।

ব্রাহ্মণপাড়া উপজে’লার চান্দলা গ্রামের মেম্বার জাকির হোসেন বলেন, ’মিথ্যা অ’পবাদ দিয়ে মে’য়েটির সংসার ভেঙেছে তার স্বামী। মে’য়েটির শ্বশুর ফরিদ মিয়ার পরিবারের লোকজনের বি’রু’দ্ধে নানা অ’ভিযোগ রয়েছে। শি’শুদেরকে তাদের মায়ের কাছে রাখা উচিত।’

এদিকে শি’শুদের মা বলেন, ’বাবার বাড়ি থেকে পাঁচ লাখ টাকা এনে স্বামীর পরিবারকে দিয়েছি। মিথ্যা অ’ভিযোগে আমাকে ডিভোর্স দিয়েছে। আমি সন্তানদের নিজের কাছে রাখতে চাই।’

কুমিল্লা কোর্ট পু’লিশের পরিদর্শক সালাউদ্দিন আল-মাহমুদ বলেন, শি’শুর দাদা তাদের সিএনজি চালিত অটোরিকশা যোগে নেওয়ার সময় তারা কা’ন্না করছিলো। পরে আম’রা তাদের উ’’দ্ধার করে আ’দালতে নিয়ে যায়।

About khan

Check Also

বিড়াল উদ্ধার করে ১২ লাখ টাকা পুরস্কার পেলেন ৪ বাংলাদেশি

গত সপ্তাহে দুবাইয়ে ভাই’রাল বিড়াল উ’দ্ধারের ভিডিও দেখে চারজন প্রবাসী সংযু’ক্ত আরব আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *