Sunday , November 29 2020
Breaking News
Home / Beauty / ফেসিয়াল ঘরে করুন ৬টি স্টেপে – স্পেশাল হারবাল ফেসিয়াল

ফেসিয়াল ঘরে করুন ৬টি স্টেপে – স্পেশাল হারবাল ফেসিয়াল

চকচকে মুখ তো সবাই চায়। কিন্তু সেই জন্য প্রতিমাসে পার্লারে ফেসিয়াল আর হয় কোথায়। চিন্তা কি বাড়িতে বসেই করে ফেলুন না হারবাল ফেসিয়াল। খুব সহজ। দেখে নিন পর পর স্টেপ।

ক্লিঞ্জিং

ফেসিয়াল করার প্রথম ধাপ সবাই জানি ক্লিঞ্জিং। এটা খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারন নোংরা মুখে ফেসিয়াল করলে কিন্তু লাভই হবে না। তাই মুখ পরিষ্কার করুণ আগে।
নিজের স্কিন টাইপ অনুযায়ী ক্লিঞ্জার বেছে নিন। তারপর হালকা গরমজলে মুখ ধুয়ে নিন। অয়েলি স্কিন হলে ওয়েল ফ্রী ক্লিঞ্জার। ড্রাই স্কিন হলে মাইলড ফোম বেস ক্লিঞ্জার। আর কম্বিনেশন স্কিন হলে, কম্বিনেশন স্কিন স্পেশাল ফেসিয়াল ব্যবহার করুণ।বাড়িতে মধু বা এক টুকরো আলু নিয়ে, সার্কুলার মোশানে বা আসতে আসতে মুখে ঘষুন ৫মিনিট। এতে মুখ অসাধারণ পরিষ্কার হয়।

ঠাণ্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন।
ক্লিঞ্জিং করা এক্সফলিয়েট ফেসিয়ালের একটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হল এক্সফলিয়েট। যেটা স্কিনের ওপরের মরা কোষ সরিয়ে দেয়। স্কিনে একটা ব্রাইট লুক আসে।
ফেসিয়ালের পর যে গ্লো টা আসে তার জন্য এই এক্সফলিয়েশন খুব জরুরী। মুখ পরিষ্কার করে নেবার পর এক্সফলিয়েট করুণ। স্ক্রাবার নিয়ে জাস্ট হালকা করে মুখে ঘষুন। কোনও চাপ দেবেন না।

কয়েক মিনিট করবেন। বাড়ির হাতে তৈরি এক্সফলিয়েটর হলে ১০ মিনিট মত করবেন। তারপর ঠাণ্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন। বাড়িতে একটু পাকা পেঁপে ও ১চামচ চালগুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এবার এটা একদম হালকা ভাবে ম্যাসাজ করুণ ২ মিনিট। তারপর ৫মিনিট রেখে দিন। এরপর ঠাণ্ডা জলে কাপড় ভিজিয়ে নিয়ে মুখ মুছে নিন।

স্টিমিং
এর পরের ধাপ হল স্টিম। মানে গরম ভাপ দেওয়া। এতে স্কিন রিলাক্স হয়। স্কিন পরস গুলো ওপেন হয়। স্কিনে জমে থাকা টক্সিন বেড়িয়ে যায়। এবং ফেসিয়ালের সমস্ত উপকারিতা কাজে লাগে। একটা পাত্রে জল গরম করুণ। জল গরম হলে পাত্র নামিয়ে নিন।n এবার এর ওপর একটা হালকা গামছা বিছিয়ে দিন। এবার গামছার ওপর থেকে ভাপ বেড়িয়ে আসবে।

সেই ভাপ নিন।
এইভাবে ৫ থেকে ১০ মিনিট ভাপ নিন। গরমজলে গ্রীন টি ব্যাগ দিয়ে দিতে পারেন। আরও ভালো কাজ করবে। স্টিম নেওয়া ফেস প্যাক একবার ভালো ভাবে স্টিম নেওয়া পর, আপনার স্কিন রেডি প্যাক লাগানোর জন্য। স্টিম নেওয়ার কিছুক্ষণ পর তাই প্যাক লাগান। তবে এক্ষেত্রে বলবো বাড়ির তৈরি ঘরোয়া প্যাকই ভালো।

নর্মাল স্কিন হলে ১চামচ দই ও ১চামচ মধু মিশিয়ে প্যাক লাগান। স্কিন যদি হয় ড্রাই, তাহলে একটা হাফ কলা ও ১চামচ মধুর প্যাক। আর অয়েলি স্কিন হলে, ১চামচ মুলতানি মাটি ও ১চামচ মধুর প্যাক লাগান।

টোনিং
এর পরের ধাপ হল টোনিং। স্টিম যে স্কিন পরস গুলো ওপেন করে এবার সেই স্কিন পরস গুলো বন্ধ করার পালা। না হলে আবার ধুলোময়লা স্কিনে ঢুকে যাবে। ওপেন পরসের সমস্যা হবে।n তাই টোনার এই কাজটাই করবে। বাজারে টোনার তো পাওয়াই যায়। নিজের স্কিন টাইপ অনুযায়ী সেগুলো ব্যবহার করতে পারেন। নাহলে বাড়ির তৈরি প্রাকৃতিক টোনার। তুলোর মধ্যে টোনার নিয়ে মুখে লাগান। চোখের কাছে দেবেন না।

টোনার লাগিয়ে কিচ্ছুক্ষণ অপেক্ষা করুণ। নিজে থেকেই এটা শুকিয়ে যাবে। হাফ চামচ অ্যাপেল সিডার ভিনিগারের সাথে ১চামচ জল মিশিয়ে করতে পারেন। না হলে আইস কিউব ব্যবহার করতে পারেন। বরফের টুকরো নিয়ে স্কিনে হালকা ভাবে ঘষুন। এতেও কাজ হয়।

ময়েশ্চারাইজিং
এবার সবশেষে স্কিনকে ময়েশ্চারাইজড করার পালা। স্কিনের ময়েশ্চার যেন হারিয়ে না যায়। এবং স্কিন যেন থাকে হাইড্রেটেড। তাই শেষের এই স্টেপ খুব গুরুত্বপূর্ণ। স্কিন যদি ড্রাই হয় তাহলে জাস্ট একটু নারকেল তেল ব্যবহার করুণ। নর্মাল স্কিন হলে ব্যবহার করুণ হাফ চামচ আমণ্ড বা অলিভ তেল।
আর অয়েলি স্কিনের জন্য হাফ চামচ জজবা তেল বা অ্যালোভেরা জেল। তবে মনে রাখবেন যেদিন ফেসিয়াল করবেন, সেদিন কিন্তু কোনও মেকআপ স্কিনে দেবেন না।

স্কিনকে যতটা সম্ভব রোদ থেকে বাঁচিয়ে রাখবেন। তবেই ফেসিয়ালের উপকারিতা স্কিন পাবে। তাই মাসে দুবার ছুটির দিনটি করে ফেলুন এই হারবাল ফেসিয়াল।স্পেশাল হারবাল ফেসিয়াল ঘরে করুন ৬টি স্টেপে

About khan

Check Also

জীবনে সুখী হতে চান? মেনে চলুন বিল গেটসের এই ৩টি উপদেশ

জীবনে সুখী হতে চান? মে’নে চলুন বিল গেটসের এই ৩টি উপদেশ – উইলিয়াম হেনরী গেটস ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page