Monday , October 26 2020
Breaking News
Home / Tips / চিংড়ি মাছের চটজলদি রেসিপি

চিংড়ি মাছের চটজলদি রেসিপি

চিংড়ি মাছ এটি সুস্বাদু একটি খাদ্য বস্তু। মাছ অথচ কাটা নেই তাই ছোট বড় সকলেরই প্রিয়। বাঙালির সব রকম উৎসব অনুষ্ঠানে প্রাচীন কাল থেকেই এই মাছ নিজের জায়গা পাকা করে এসেছে।

ডাব চিংড়ি, চিংড়ি মালাইকারি, কোফ্তাকারী, ঝালচচ্চড়ি, কালিয়া ইত্যাদি আরো নানা রকম ভাবেই চিংড়ি মাছ আমাদের রসনাকে তৃপ্ত করে। আসুন না আজ আমরা এই চিংড়ি মাছের তিনটি সেরা রেসিপিতে চোখ বুলিয়ে নেই।

ভাপা চিংড়ি রেসিপি উপকরণঃ মাঝারি মাপের চিংড়ি ২০টি হলুদ গুঁড়ো ১/২ চা চামচ লবন স্বাদ অনুযায়ী খোসা ছাড়ানো গোটা সর্ষে ৩ বড় চামচ পোস্ত দানা ৩ বড় চামচ নারকেল কোঁড়া ১/২ কাপ শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো স্বাদ অনুযায়ী কাঁচালঙ্কা ৫থেকে ৬টি চিনি ১/২ চা চামচ সর্ষের তেল ৩ থেকে ৪ বড় চামচ ভাপা চিংড়ি

প্রণালীঃ
চিংড়ি মাছগুলিকে প্রথমে ভালো করে পরিষ্কার করে নিতে হবে। এবার ১/২ চামচ লবন ও ১/২ চামচ হলুদ গুঁড়ো দিয়ে মাছগুলিকে ভালো করে মেখে ১৫ মিনিট রেখে দিতে হবে। এরপর মিক্সিতে অল্প জল, সর্ষে , পোস্ত, অল্প লবন ও ২-৩ টি কাঁচালঙ্কা দিয়ে একসাথে বেটে পেস্ট মতো বানিয়ে নিতে হবে। এবার একটি পাত্রে সর্ষে পোস্ত বাটার সাথে নারকেল কোরা, চিনি, কাঁচালঙ্কা, শুকনোলঙ্কাগুঁড়ো ও অল্প লবন ও তেল ভালো করে মিশিয়ে আগে থেকে ম্যারিনেট করে রাখা চিংড়ি মাছ সমেত ভালো করে আর একবার মেখে নিতে হবে।

প্রথমে একটি স্টিলের টিফিন বক্স বা স্টিলের ঢাকা দেওয়া কোনো পাত্রে চারপাশে অল্প করে তেল মাখিয়ে নিতে হবে। সমস্ত মশলা সমেত চিংড়ি মাছ ঢেলে পাত্রের মুখ ভালো করে আটকে দিতে হবে।

একটি বড় পাত্র গ্যাসে বসিয়ে তাতে জল গরম করে নিতে হবে। জল গরম হয়ে গেলে আঁচ কমিয়ে তাতে চিংড়ি মাছ সমেত ঢাকা পাত্রটি ভালো করে বসিয়ে দিতে হবে।

মাঝারি আঁচে ১৫ থেকে ২০ মিনিট রাখার পর গ্যাস বন্ধ করে দিতে হবে। গ্যাস বন্ধ করে আরো ১০ মিনিট পাত্রটি বন্ধ করে রাখতে হবে। ১০ মিনিট পর পাত্রটি খুলে গরম গরম ভাতের সাথে পরিবেশন করুন ভাপা চিংড়ি। চিংড়ি মাছের কালিয়া

উপকরণঃ চিংড়ি মাছ( মাঝারি বা বড় ) ১০ থেকে ১২টি আলু মাঝারি ২টি লম্বা করে কাটা পেঁয়াজ কুচি ২ -৩ বড় চামচ আদা বাটা ১ চা চামচ টমেটো কুচি ২টি কাঁচালঙ্কা ২টি তেজপাতা ১টি এলাচ (সবুজ)২-৩টি লবঙ্গ ২-৩টি দারচিনি ১ টি ১ইঞ্চি হলুদগুঁড়ো ২ চা চামচ কাশ্মীরি লালমির্চ পাউডার ২ চা চামচ লবন স্বাদ অনুযায়ী চিনি ১ চা চামচ mসর্ষের তেল গরম মশলা গুঁড়ো ১চা চামচ লেবুর রস ১ চা চামচ চিংড়ি মাছের কালিয়া

প্রণালীঃ প্রথমে চিংড়ি মাছ ভালো করে ধুয়ে অল্প হলুদ, লেবুর রস ও অল্প লবন দিয়ে ম্যারিনেট করে রেখে দিন ১৫ মিনিট।
একটি পাত্রে তেল গরম করে তাতে আলুগুলি অল্প লবন ও হলুদ দিয়ে ভেজে তুলে রাখুন। ওই একই পাত্রে প্রয়োজন হলে আর একটু তেল দিয়ে ম্যারিনেট করা চিংড়ি মাছ ভালো করে ভেজে নিন।

ওই পাত্রে ১ বড় চামচ তেল গরম করে তাতে গোটা গরম মশলা দিয়ে দিন। এবার পেঁয়াজ কুচি দিয়ে নাড়তে থাকুন যতক্ষন না পেঁয়াজ হালকা সোনালী রঙের হচ্ছে। কাঁচালঙ্কা কুচি ও আদাবাটা দিয়ে আবার নাড়তে থাকুন। ২-৩ মিনিট নাড়ার পর এতে হলুদ গুঁড়ো, কাশ্মীরি লাল মির্চ পাউডার দিয়ে ভালো করে নেড়েচেড়ে নিন। মশলা যাতে পুড়ে না যায় তার জন্য অল্প জল মিশিয়ে নিন। ২ মিনিট পর টমেটো কুচি দিয়ে আবার নাড়তে থাকুন যতক্ষন না মশলা থেকে তেল আলাদা হয়ে যাচ্ছে।

এতে আগে থেকে ভেজে রাখা আলু ও চিংড়ি মাছ দিয়ে অল্প নাড়িয়ে প্রয়োজন মতো জল, লবন ও চিনি দিয়ে পাত্রের ঢাকা বন্ধ করে দিন।
গ্যাসের আঁচ কমিয়ে দিন। যতক্ষন না আলু সেদ্ধ হচ্ছে ততক্ষন ঢাকা বন্ধ করে রান্না হতে দিন।
আলু সেদ্ধ হয়ে গেলে ইচ্ছে মতো গ্রেভি রেখে অল্প গরম মশলা ছড়িয়ে গ্যাস বন্ধ করে দিন। পরিবেশন করার আগে অল্প ধনে পাতা কুচি ছড়িয়ে দিতে পারেন।
চিংড়ি মাছের কোফতা

উপকরণঃ ছোট চিংড়ি মাছ ৫০০ গ্রাম, ২টি মাঝারি মাপের পেঁয়াজ কুচি, লবন স্বাদ অনুযায়ী, ২চামচ ব্রেডক্রাম্ব, তেল, কাঁচালঙ্কা ৪ টি কোঁচানো, ২চামচ ঘি, তেজপাতা ২টি, নারকেলের দুধ ১/২ কাপ, ধনেপাতা কুচি ১ বড় চামচ, ডিম ১টি। পেস্ট বানানোর জন্য ১টি বড় পেঁয়াজ, হলুদ গুঁড়ো, ১ইচি আদা, এলাচ (সবুজ)২-৩ টি, লবঙ্গ ২-৩ টি, দারচিনি ১ টি ১ইঞ্চি।

প্রণালীঃ চিংড়ি মাছের খোসা ছাড়িয়ে ভালো করে ধুয়ে সেদ্ধ করে নিতে হবে। সেদ্ধ হয়ে গেলে মিক্সিতে পেস্ট মতো করে নিতে হবে। এবার এতে লবন, পেঁয়াজকুচি, লঙ্কাকুচি ও ধনে পাতা কুচি মিশিয়ে নিতে হবে। ওই মিশ্রণ থেকেগোল গোল ১২ টি ১৩ টি বলের মতো বানিয়ে নিতে হবে। এবার একটি পাত্রে ডিম ফেটিয়ে নিতে হবে। আর একটি পাত্রে ব্রেডক্রাম্ব রেখে নিতে হবে। কড়াইতে তেল গরম করে ওই চিংড়ি মাছের বল গুলোকে এক এক করে প্রথমে ডিমে চুবিয়ে তারপর ব্রেডক্রাম্ব এ মাখিয়ে ডুবো তেলে ভালোকরে ভেজে নিতে হবে।

এবার মিক্সিতে গোটা গরম মশলা, পেঁয়াজ, আদা, হলুদ গুঁড়ো ও অল্প জল দিয়ে ভালো করে পেস্ট বানিয়ে নিতে হবে।
একটি পাত্রে তেল গরম করে তাতে প্রথমে তেজ পাতা দিতে হবে। এরপর মিক্সিতে বানানো মশলার পেস্টটি দিয়ে ভালো করে নাড়তে হবে। অল্প অল্প জলের ছিটে দিতে হবে যাতে মশলা পুড়ে না যায়।

এতে নারকেলের দুধ মিশিয়ে দিতে হবে। এবার অল্প জল ও লবন মিশিয়ে কিছুক্ষন নাড়িয়ে চিংড়ি মাছের কোফতা বা বড়াগুলি মিশিয়ে দিতে হবে। পাত্রটি ঢাকা দিয়ে গ্যাসের আঁচ কমিয়ে দিতে হবে।এভাবে ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে ঢাকনা খুলে দিতে হবে। গ্রেভি ঘন হয়ে গেলে তাতে ঘি মিশিয়ে দিতে হবে। রেডি আপনার চিংড়ি মাছের কোফতা।

About Dolon khan

Check Also

চাল ধোওয়া পানি অথবা ভাতের মাড় কখনো ফেলবেন না, কারণ তা অবিশ্বাস্য কাজের!

একবার ভাত হয়ে গেলে, ফ্যান বা মাড়টা কি কখনও রেখে দিয়েছেন? সুতির জামা-কাপড়ে মাড় দেওয়ার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x

You cannot copy content of this page