Thursday , October 22 2020
Breaking News
Home / Education / বিসিএস কি মেধা যাচাইয়ের একমাত্র মাপকাঠি

বিসিএস কি মেধা যাচাইয়ের একমাত্র মাপকাঠি

বিসিএস পরীক্ষা হলো দেশব্যাপী পরিচালিত একটি প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা। এটি বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন (বিপিএসসি) কর্তৃক পরিচালিত হয়ে থাকে। বেশিরভাগ মানুষ বিসিএসকেই সবকিছু মনে করেন। কিন্তু বিসিএস ক্যাডার হতে পারেন কতজন? অনেক শিক্ষার্থীর প্রশ্ন বিসিএস কি মেধা যাচাইয়ের একমাত্র পদ্ধতি? এ বিষয়ে যশাের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের মন্তব্য জানাচ্ছেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী এ টি এম মাহফুজ।

সাজ্জাত হোসেন, পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগ

শিক্ষার্থীদের বড় একটা অংশের স্বপ্ন থাকে বিসিএস ক্যাডার হওয়া। আমরা একটু চিন্তা করলেই এই বিসিএসপ্রীতির অনেক কারণ খুঁজে পাই। যেমন, কেউ হয়তো ছোটবেলা থেকেই চিন্তা করেছে বিসিএস ক্যাডার হবেন। নিরাপদ ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে বিসিএর-এর দিকে ঝুঁকেন অনেকে। কেউবা একাডেমিক রেজাল্ট বিবেচনা করে বিসিএসের চিন্তা করেন।

এটা ঠিক যে বিসিএস ক্যাডার হতে হলে একজন শিক্ষার্থীকে প্রচুর পড়াশোনা করতে হয়। অমানুষিক পরিশ্রম করতে হয়। বিসিএস ক্যাডার হতে হলে একজন শিক্ষার্থীকে অবশ্যই তার মেধার পরিচয় দিয়েই ক্যাডার হতে হয়। তার মানে এটা নয় যে বিসিএস ছাড়া অন্য কোথাও অন্য কোনোভাবে মেধার পরিচয় দেয়া যায় না।

বিসিএস ক্যাডার না হলে সে মেধাবী নয়, এটা পুরোপুরি ভুল ধারণা। যেকোনো পেশার মানুষই তার নিজ পেশার মাধ্যমে মেধা প্রকাশ করতে পারেন। গবেষক, বিজ্ঞানী, প্রকৌশলী, চিকিৎসক, শিক্ষক বা একজন খেলোয়াড় প্রত্যেকেই তার নিজ কাজের মাধ্যমে তার মেধাকে তুলে ধরেন। অন্যান্য প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার মতোই বিসিএস পরীক্ষাও একটি প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে কতিপয় মেধাবীকে বেছে নেয়া হয়। তার মানে এটা নয় যে বিসিএসই মেধা যাচাইয়ের একমাত্র পথ।

আমরীন ইসলাম অতশী, ইংরেজি বিভাগ

বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে কেউ যদি প্রথম শ্রেণীর কর্মকর্তা হতে চান তাহলে বিসিএসই একমাত্র উপায়। বিসিএসের মাধ্যমে দেশে একটা ফার্স্ট ক্লাস লাইফ লিড করা সম্ভব। পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের বেশিরভাগ শিক্ষার্থীর প্রথম পছন্দ বিসিএস। বিসিএস দিনে দিনে আকাঙ্ক্ষার সর্বোচ্চ শিখরে পৌঁছে গেছে।তবে এটা মেধা যাচাইয়ের একমাত্র উপায় নয়। অনেকে মেধাবী হওয়া সত্ত্বেও ধৈর্য রাখতে না পারার কারণে এখানে টিকতে পারে না। যারা বিসিএস এ টিকে যায় আমাদের সমাজ তাদেরকেই সবচেয়ে মেধাবী এবং শিক্ষিত বলে মেনে নেয়। আলাদা মর্যাদা দেয় তাদের। কিন্তু এটা কতটা ঠিক? সমাজের বাকি চাকরিজীবী বা ব্যবসায়িরা কি মেধাবী নন?

আনিকা তাসনিম, পদার্থবিজ্ঞান বিভাগ

বিসিএস পরীক্ষা হচ্ছে সরকারি চাকরিতে প্রবেশে সবচেয়ে বড় প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা। এই পরীক্ষা পর্যায়ক্রমে তিনটি ধাপে অনুষ্ঠিত হয়- প্রিলিমিনারি পরীক্ষা (এমসিকিউ), লিখিত পরীক্ষা এবং মৌখিক পরীক্ষা (ইন্টারভিউ)। একজন পরীক্ষার্থীকে তিনটিতেই নিজের মেধা ও যোগ্যতার প্রমাণ রাখতে হয়। বিসিএস প্রত্যেকের আকাঙ্ক্ষা কেননা এটি নিশ্চিত আয়, সম্মান এবং ক্ষমতা দেয়। প্রতিবছর বিসিএস পরীক্ষার জন্য কয়েক লাখ আবেদন জমা পড়ে। কিন্তু পদ সংখ্যা কেবল দুই হাজারের কাছাকাছি। এজন্য, বিসিএস মেধা মুল্যায়ণের একটা রাস্তা হলেও, একমাত্র রাস্তা নয়।

মুনতাছির রহমান, ইইই বিভাগ

বিসিএস এর সিলেবাস আমরা যারা ইঞ্জিনিয়ারিং বা মেডিকেল সায়েন্স নিয়ে পড়াশোনা করি তাদের অনার্সের সিলেবাসের পুরো উল্টা। আর আমরা দেখি যে, স্বাস্থ্য সচিব সমাজবিজ্ঞানে অনার্স করেছে। তাহলে তিনি কীভাবে স্বাস্থ্য খাতে তাঁর শিক্ষা, মেধা কাজে লাগাবেন? তাহলে এই ভাবে কি মেধা যাচাই করা সম্ভব!

হাতেগোনা কয়েকজন তাঁদের নিজের সাবজেক্ট অনুযায়ী বিসিএস সেক্টর পায়। আর প্রায় সবাই উল্টা। তাহলে মেধা যাচাই কী করে হবে? দেশটা এগিয়ে যাবে কীভাবে, যদি আমি আমার কর্মক্ষেত্রে আমার মেধা কাজেই লাগাতে না পারি!

জুবায়ের রনি, এগ্রো প্রোডাক্ট প্রসেসিং টেকনোলজি বিভাগ

মেধা বা বুদ্ধি যাচাইয়ের অনেকগুলো উপায় আছে। যেমন ধরেন কারো মুখস্থবিদ্যা খুব ভালো, তাহলে সে কিন্তু মেধাবী। আবার ধরেন কেউ সৃজনশীল, তাহলে সেও কিন্তু মেধাবী। আবার অনেকে আছেন খুবই বিশ্লেষণধর্মী, তাহলে তাকেও কিন্তু মেধাবী বলতেই হবে। তার মানে আমরা দেখতে পারছি যে, মেধা যাচাইয়ের অনেকগুলো উপায় বা সূচক আছে। এগুলোর কোনো একটাকেই একমাত্র সূচক বা প্রতীক বলা যাবে না।
আমাদের বাংলাদেশ চাকরির অনেকগুলো ক্ষেত্র আছে আমরা সবাই জানি। সোনার হরিণ সরকারি চাকরি, এরমধ্যে আবার অনেক ক্যাটাগরিও আছে। ক্যাডার, নন ক্যাডারসহ আরও অনেক।

সরকারি চাকরির মধ্যে সব থেকে সেরা, উচ্চ বেতনের এবং সম্মানের চাকরি হলো বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস বা সংক্ষেপে বিসিএস। শুধু সরকারি চাকরির মধ্যেই না, ইভেন পুরো বাংলাদেশে যত ধরনের চাকরি আছে তারমধ্যে বিসিএসকেই আমাদের সমাজে সেরা চাকরি মনে করা হয়। আর যারা বিসিএস-এ টিকে যায় আমাদের সমাজ তাদেরকেই সমাজের সবচেয়ে মেধাবী এবং শিক্ষিত বলে মেনে নেয় এবং মর্যাদা দেয়। বাকিদের কোনো বেল নাই বিসিএস ক্যাডারদের কাছে।

কিন্তু এটা কি আসলে ঠিক? বিসিএস-এ যারা টিকে যায় তারা মেধাবী এটা অস্বীকার করবো না। কিন্তু শুধু তারাই মেধাবী? সমাজের বাকি চাকরি বা ব্যবসা করা মানুষ কি মেধাবী না?

রৌদ্র সূত্র ধর, জলবায়ু ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগ

বাংলাদেশ একটি উন্নয়নশীল দেশ। দেশের সরকারি কার্যাবলি পরিচালনায় প্রয়োজন দক্ষ জনশক্তি। দক্ষ জনশক্তি বাছাইয়ে ব্যবস্থা করা হয় বিসিএস পরীক্ষার মাধ্যমে। কিন্তু শুধু বিসিএস পরীক্ষার মাধ্যমে সব মেধাবীকে চিহ্নিত করা যায় না।

যবিপ্রবি/মাহফুজ/মাহি

About Dolon khan

Check Also

“হানিফ সংকেত” ইঞ্জিনিয়ারিং এর ছাত্র ছিলেন

“হানিফ সংকেত” ও ইলেকট্রিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার। তিনি বাংলাদেশ সুইডেন পলিটেকনিকের স্টুডেন্ট ছিলেন।দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠান ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x