Tuesday , September 22 2020
Breaking News
Home / Education / পাহাড়-পর্বত-পর্বতমালা সংক্রান্ত কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন

পাহাড়-পর্বত-পর্বতমালা সংক্রান্ত কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন

[মাটির উঁচু স্তর বা স্তুপকে বলে পর্বত । অপেক্ষাকৃত কম উঁচু মাটির স্তুপকে বলে পাহাড় । আর তারচেয়েও ছোট যেগুলো, সেগুলোকে বলা হয় টিলা । আর অনেকগুলো পর্বতকে একসঙ্গে বলা হয় পর্বতমালা ।] [তবে পরীক্ষায় সাধারণত পাহাড় বলতেও পর্বতই বুঝিয়ে থাকে; পাহাড় বলতে আলাদা করে পাহাড় নির্দেশ করে না । এ সকল ক্ষেত্রে উত্তর দেয়ার সময় অপশনগুলো ভালোমতো খেয়াল করে উত্তর দিতে হবে । উচ্চতম পাহাড় কোনটি- এই প্রশ্নের উত্তরের অপশনে যদি গারো পাহাড় থাকে, তবে অবশ্যই গারো পাহাড় উত্তর করতে হবে ।]

1. বাংলাদেশের পাহাড়সমূহ গঠিত- টারশিয়ারী যুগে

2. বাংলাদেশের পাহাড়গুলো- ভাঁজ পর্বত

3. দেশের বৃহত্তম/উচ্চতম পাহাড়- গারো পাহাড়

4. গারো পাহাড়- ময়মনসিংহ জেলায় অবস্থিত

5. বাংলাদেশের পাহাড়ের গড় উচ্চতা- ৬১০ মিটার বা ২০০০ ফুট

6. ইউরেনিয়াম পাওয়া গেছে- কুলাউড়া পাহাড়ে (মৌলভীবাজার)

7. চন্দ্রনাথের পাহাড় অবস্থিত- চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে (হিন্দুদের তীর্থস্থান)

8. লালমাই পাহাড়- কুমিল্লা 9. চিম্বুক পাহাড়- বান্দরবান

10. চিম্বুক পাহাড়ে বাস করে- মারমা উপজাতিরা

11. সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ- তাজিনডং

12. তাজিনডংয়ের অপর নাম- বিজয়

13. তাজিনডং মারমা শব্দ; মানে- গভীর অরণ্যে পাহাড়

14. তাজিনডং- বান্দরবান জেলায় অবস্থিত

15. তাজিনডংয়ের উচ্চতা- ৩১৮৫ ফুট

16. দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ- কেওকারাডং (উচ্চতা- ২৯২৮ ফুট)

17. কেওকারাডং- বান্দরবান জেলায় অবস্থিত

18. তৃতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ- চিম্বুক পর্বতশৃ্ঙ্গ (বান্দরবান জেলায় অবস্থিত)

বন বন

19. বনাঞ্চলকে- ৪ ভাগে ভাগ করা যায়

20. সামাজিক বনায়ন কর্মসূচী- ১৯৭৯ সালে

21. জাতীয় বননীতি- ১৯৯৪ সালে

22. বন আইন – ১৯৯২ ও ২০০২ সালে

23. রাষ্ট্রীয় বন নেই- ২৮টি জেলায়

24. দীর্ঘতম বৃক্ষ- বৈলাম বৃক্ষ(বান্দরবান ে জন্মে)

25. বন গবেষণা কেন্দ্র- চট্টগ্রামে

26. হরিণ প্রজনন কেন্দ্র- কক্সবাজারের ডুলাহাজরায়

27. শাল গাছের জন্য বিখ্যাত- ভাওয়াল ও মধুপুরের বন

28. বরেন্দ্রভূমি- রাজশাহীতে সুন্দরবন

সুন্দরবন

29. বাংলাদেশের জাতীয় বন- সুন্দরবন

30. বিশ্ব ঐতিহ্য (World Heritage)- সুন্দরবন

31. সুন্দরবনকে বিশ্ব ঐতিহ্য হিসেবে ঘোষণা দিয়েছে- UNESCO (১৯৯৭ সালে) (৫২২তম)

32. মোট বনভূমি- ২৫ লক্ষ হেক্টর/ ২৫ হাজার বর্গকিমি

33. বনভূমি মোট ভূমির- ১৭.৫০%

34. সুন্দরবনের আয়তন – ৫৭৪৭ বর্গকিমি(অথবা ৫৫৭৫ বর্গকিমি)/ ২৪০০ বর্গমাইল

35. বাংলাদেশে সুন্দরবনের- ৬২% (বাকি ৩৮% ভারতে)

36. সুন্দরবনকে স্পর্শ করেছে- ৫টি জেলা

37. পৃথিবীর বৃহত্তম ম্যানগ্রোভ বন- সুন্দরবন (সুন্দরবন টাইডাল বনও বটে)

38. সুন্দরবনের ৩টি এলাকাকে অভয়ারণ্য ঘোষণা করা হয়েছে।

39. সুন্দরবনের প্রধান গাছ- সুন্দরী

অন্যান্য ভৌগোলিক তথ্য বিল

39. সর্ববৃহৎ বিল- চলনবিল

40. চলনবিল- পাবনা ও নাটোরে অবস্থিত

41. চলনবিলের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত নদী- আত্রাই

42. মিঠাপানির মাছের প্রধান উৎস- চলনবিল

43. তামাবিল- সিলেটে

44. বিল ডাকাতিয়া- খুলনায়

45. আড়িয়াল বিল- শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) হাওড়

46. সবচেয়ে বড় হাওড়- টাঙ্গুয়ার হাওড়

47. টাঙ্গুয়ার হাওড়- ‍সুনামগঞ্জে

48. টাঙ্গুয়ার হাওড়- World Heritage (UNESCO ঘোষিত)

49. টাঙ্গুয়ার হাওড়কে ইউনেস্কো ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ বলে ঘোষণা করে- ২০০০ সালে

50. হাকালুকি হাওড়- মৌলভীবাজার [বিল ও হাওড়ের পার্থক্য মূলত- বিলে সারা বছর পানি থাকে, কিন্তু হাওড়ে সারা বছর পানি থাকে না । শীতকালে হাওড় শুকিয়ে যায়, আবার বর্ষাকালে পানিতে ভরে যায় । বিলের পানির স্তর মাটির স্তরের নিচে থাকে, তাই বিলে সারা বছর পানি থাকে । আর হাওড়ের পানির স্তর থাকে মাটির স্তরের উপরে; মূলত আশেপাশের তুলনায় নিচু হওয়ায় বর্ষাকালে ভরা নদীর পানি হাওড়ে এসে জড়ো হয় । শীতকালে নদীর পানি কমে গেলে হাওড়-ও শুকিয়ে যায় ।]

ঝরনা

51. শীতল পানির ঝরনা- কক্সবাজারের হিমছড়ি পাহাড়ে

52. গরম পানির ঝরনা- সীতাকুণ্ডের চন্দ্রন

About Dolon khan

Check Also

বিসিএস লিখিত পরীক্ষা: ইংরেজিতে ভালো করতে হলে

৩৭তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আগামী ১২ ফেব্রুয়ারি। পরীক্ষার নানা কলাকৌশল নিয়ে বিষয়ভিত্তিক পরামর্শ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *