Saturday , September 19 2020
Breaking News
Home / Lifestyle / ৫ মিনিটে দূর করুন তেলাপোকা, ছারপোকা ও টিকটিকি

৫ মিনিটে দূর করুন তেলাপোকা, ছারপোকা ও টিকটিকি

ছারপোকা ও টিকটিকি – তেলাপোকা, ছারপোকা ও টিকটিকি ঘরের জন্য খুবই ক্ষতিকর। তাই আজকে আপনাদের বলব কিভাবে ঘর থেকে দূর করবেন তেলাপোকা, ছারপোকা ও টিকটিকি। এ টিপসটি ১০০% কার্যকরী, যা পরীক্ষিত। আপনারা এটি বাসায় চেষ্টা করে দেখলেই বুঝতে পারবেন, আসলে কতটা উপকারী।

তেলাপোকা খুবই বিরক্তিকর একটি পোকা। তেলাপোকা নাই এমন বাসা খুজে পাওয়া মুশকিল। এটা খুবই নোংরা একটি পোকা যা আমাদের কিচেনে ঘুরে বেড়ায়। এটা স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ক্ষতিকর। তাই এ তেলা পোকার হাত থেকে বাছার জন্য ২ টি টিপস বলব ঘরোয়া পদ্ধতির। যা থেকে আপনারা খুবই উপকার পাবেন।

টিপস ১ – প্রথমে আপনি সেবলন বা ডেটল যে কোন একটি নিবেন। আর লাগবে পানি। ২৫০ গ্রাম পানির জন্য ৪ চা চামচ সেভলন বা ডেটল নিবেন। পানির পরিমান কম বেশি নিলে সেভলনের পরিমানও কম বেশি নিবেন। এর পর পানি এবং সেভলন ভাল ভাবে মিলিয়ে একটি বোতলে নিবেন।

ভাল ভাবে মিলানো টা কিন্তু খুবই গুরুত্বপূর্ন। কারণ ভালো ভাবে না মিশালে এটি কার্যকরী হবে না। তারপর বোতলের সাথে একটি স্পেরে মুখ লাগিয়ে স্প্রে করে দিবেন। যেখানে যেখানে তেলা পোকা বা ছার পোকা ঘুরে বেড়ায় সেখানে সেখানে স্প্রে করে দিবেন। ৫ মিনিটের মধ্যে তেলাপোকা বা ছারপোকা মরে যাবে বা চলে যাবে। আর কখনও আসবে না। পর পর এক সপ্তাহর মত স্প্রে করলে দেখবেন আপনার ঘর পুরোপুরি তেলাপোকা বা ছারপোকা মুক্ত হয়ে যাবে।

টিপস ২ – এ জন্য লাগবে শশা এবং পরিমান মত পানি। নরমাল পানি নিলেও হবে। প্রথমে আপনি শশাটা কেটে নিবেন রাউন্ড সেপ করে। খুব বেশি মোটা করে কাটবেন না। যাতে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করা যায় সে রকম করে পাতলা পাতলা কাটবেন। খোসা সহ কেটে নিবেন। খোসা ছিলানোর কোন দরকার নেই। এবার কুচানো শশা গুলো ব্লেন্ড করে নিতে হবে। আপনাদের কাছে যদি ব্লেন্ডার না থাকে তবে পাটায় খুব মিহি করে বেটে নিতে পারেন। একটা শশার জন্য ৩ টেবিল চামচ পানি নিয়ে ব্লেন্ড করে নিবেন খুবই মিহি করে। এরপর একটি ব্রাশ নিবেন।

ব্রাশে শশার পেস্ট লাগাবেন। যেখানে যেখানে তেলা পোকার উপদ্রব বেশি সেখানে সেখানে শশার পেস্ট লাগিয়ে নিবেন। তেলা পোকার উপদ্রব যত দিন বেশি থাকবে তত দিন লাগাবেন। উপদ্রব কমে গেলে কিছু দিন পর পর লাগালেও হবে। শশার পেস্ট বেশি ঘন আবার বেশি পাতলাও হতে পারবে না। লাগানোর পর যে পেস্ট বেছে যাবে সেটি আপনি একটি বক্সে ভরে নরমাল ফ্রিজে রেখে দিবেন। পরে আবার আপনি একই পদ্ধতিতে এই পেস্ট ব্যবহার করতে পারবেন। সবাই এটি বাসায় চেষ্টা করে দেখুন আর ঘর থেকে চিরতরে তেলাপোকা ছরপোকা দূর করুন।

লেয়ার চা

দিনে কয়েক কাপ চা খাওয়া অনেকেরই অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। তবে প্রতিদিনের চায়ের থেকে ভিন্নধর্মী একটি চা বানিয়ে সকলকে চমকে দিলে কেমন হয়। এ জন্য তৈরি করে নিতে পারেন লেয়ার চা। এই চা বানানো খুবই সহজ ও দেখতেও আকর্ষনীয়। লেয়ার চা বানানো পদ্ধতি জেনে নিন-

উপকরণ: ফুল ক্রিম দুধ আধা লিটার, চিনি স্বাদ মতো, চা পাতি আধা চা চামচ, গোল মরিচ ৪ থেকে ৫ টি, এলাচ ২টি, লবঙ্গ ২ টি।

প্রণালী: দুধের লেয়ার তৈরি করে নিতে হবে। এ জন্য আধা লিটার ফুল ক্রিম দুধে স্বাদ মতো চিনি দিতে হবে। দুধ বলক না আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। নেড়ে দিতে হবে নাহলে নিচে লেগে যেতে পারে। দুধে বলক আসলে চুলা থেকে নামিয়ে অনেক উপর থেকে একটা বাটিতে ঢেলে নিতে হবে।

এরপর একটা হ্যান্ড মিক্সারের সাহায্য ফেনা বানিয়ে নিন। যখন অনেক ফোম তৈরি হয়ে যাবে তখন এটা রেখে দিন। এবার চায়ের অন্য একটি লেয়ার তৈরি করে নিতে প্যানে আধা লিটার পানি ও চা পাতি দিয়ে এর মধ্যে চার থেকে পাঁচটি গোল মরিচ, দুটো এলাচ, আর দুটো লবঙ্গ দিয়ে চা ভালো ভাবে ফুটিয়ে নিন।

যখন চায়ে বলক আসবে তখন এটা ছেঁকে নিয়ে গ্লাসে উপর থেকে ফোম করা দুধ ঢেলে নিতে হবে। এরপর গ্লাসের উপর একটা চামচ উলটো করে ধরে খুব আস্তে আস্তে লিকার চা ঢেলে নিতে হবে। দুধের লেয়ার চায়ের লেয়ার থেকে অবশ্যই হালকা ঠান্ডা হতে হবে। নাহলে কিন্তু চায়ে খুব সুন্দর লেয়ার হবে না। এভাবে খুব সহজেই লেয়ার চা বানিয়ে নিতে পারেন। কাউকে খুশি করার জন্য এমন এক কাপ চা’ই যথেষ্ঠ।

About Dolon khan

Check Also

কেউ সত্যিই আপনাকে ভালোবাসে কিনা বুঝে নিন এই উপায়ে

ভালোবাসার সম্পর্ক খুবই সুন্দর। একজন অপরজনের প্রতি আকৃষ্ট হলে ধীরে ধীরে তা প্রেমে রূপ নেয়। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *