Saturday , January 16 2021
Breaking News
Home / দেশ-বিদেশ / ভারতীয়দের ঘুম হারাম !

ভারতীয়দের ঘুম হারাম !

ভারতে করোনা পরিস্থিতি আরও খা’রাপের দিকে গড়াচ্ছে। ১৩৩ কোটি মানুষের দেশটিতে ২১ দিনের লকডাউন চলছে। ১৪ এপ্রিল শেষ হওয়ার কথা এই সময়সীমা। কবে লকডাউন উঠবে, কবে স্বাভাবিক জীবনে ফেরা যাবে, সেটা কেউ বলতে পারে না। একটা-একটা করে দিন গুনছেন সবাই। কিন্তু সত্যিই কি ১৪ এপ্রিলের পর রেহাই মিলবে? মা’র্কিন সংস্থা বোস্টন কনসাল্টিং গ্রুপের (বিসিজি) রিপোর্ট অবশ্য বলছে উঠবে না লকডাউন। যা নিঃস’ন্দেহে চিন্তা ও আশ’ঙ্কা দ্বিগুণ করে দিচ্ছে ভারতীয়দের।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ঘোষণার পর গত ২৪ মা’র্চ এদেশে শুরু হয় লকডাউন। শুক্রবার তার দশম দিন। আর এর মধ্যেই বিসিজির সমীক্ষা রিপোর্টে নতুন করে কপালে ভাঁজ পড়ল ভারতবাসীর। কারণ তাদের রিপোর্ট অনুযায়ী, জুনের শেষ সপ্তাহ অথবা সেপ্টেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহ পর্যন্ত ভারতে লকডাউন চলতে পারে।

কী’’সের ভিত্তিতে এ কথা বলা হচ্ছে? লকডাউনে চীনের পরিস্থিতি এবং ভারতের স্বাস্থ্যের পরিকাঠামোর উপর ভিত্তি করেই তৈরি হয়েছে রিপোর্ট। বিসিজির দাবি, ভারতের জনসংখ্যা এবং অনুন্নত স্বাস্থ্য ব্যবস্থার জন্যই এত তাড়াতাড়ি লকডাউন তুলে নেওয়া সম্ভব হবে না। তা অন্তত সেপ্টেম্বর পর্যন্ত গড়াবে।

শুধু তাই নয়, তাদের সমীক্ষা বলছে, জুনের তৃতীয় সপ্তাহে ভারতে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা ভ’য়াবহ রূপ নিতে পারে। তবে যদি এরপর প্রশাসন লকডাউন তোলার কথা চিন্তা করে, সেক্ষেত্রে গৃহব’ন্দি দশা কাটতে পারে জুনের শেষ সপ্তাহে।

কলম্বিয়া, পোল্যান্ড এবং ব্রিটেনেও ২৪ মা’র্চই লকডাউন শুরু হয়েছে। বিসিজির সমীক্ষা বলছে, জুন-জুলাই পর্যন্ত সে সব দেশে লকডাউন চলতে পারে। তবে ভারতের স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে আরও সময় লাগবে।

ভারতে প্রতিদিনই লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এরই মধ্যেই ২ হাজার ৫৬৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। মৃ’ত্যু হয়েছে ৭২ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা কিছুতেই কমানো যাচ্ছে না। বিসিজির রিপোর্ট সামনে আসতেই রাতের ঘুম উড়েছে ভারতীয়দের। যদিও কেন্দ্রীয় সরকার আগেই জানিয়েছিল, লকডাউনের সময়সীমা বাড়ানোর কোনও পরিকল্পনা নেই।

About khan

Check Also

মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুড়ে খাদ্য সামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন থা’নার ওসি

সাধারন মানুষের কল্যানে সব সময় কাজ করে যাচ্ছেন চুয়াডাঙ্গার দর্শনা থা’নার অফিসার্স ইনচার্জ ওসি মাহবুবুর ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page