Saturday , April 17 2021
Breaking News
Home / Education / প্রথম বিসিএসেই ক্যাডার হয়ে স্বপ্নপূরণ করলেন জবির ফজলুর রহমান

প্রথম বিসিএসেই ক্যাডার হয়ে স্বপ্নপূরণ করলেন জবির ফজলুর রহমান

মোঃ ফজলুর রহমান মামুন, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শিক্ষাজীবন শেষ করেন। ছোট বেলায় স্বপ্ন ছিল বিদেশে উচ্চ শিক্ষা নিবেন কিন্তু পরিবারের আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপট ও বাস্তবতা চিন্তা করে সিভিল সার্ভিসে প্রবেশের সিদ্ধান্ত নেন৷ সেই স্বপ্নের পেছনে ছুটতে মুষ্টিবদ্ধ সংকল্প ও হার না মানা মানসিকতা নিয়ে রাত দিন পরিশ্রম করেন।প্রথমবার-ই বাজিমাত। জীবনের প্রথম বিসিএস পরীক্ষা দিয়ে তিনি সফলতার সহিত বাংলাদেশ কর্ম কমিশন(পিএসসি) কর্তৃক ৩৮তম বিসিএসে ‘এসিস্ট্যান্ট

একাউনটেন্ট জেনারেল’ পদবীতে বিসিএস (অডিট এন্ড একাউন্টস) ক্যাডারে হিসেবে জাতীয় মেধায় চারলক্ষাধিক চাকরী প্রার্থীদের পেছনে ফেলে সুদীর্ঘ তিন বছরের প্রচেষ্টায় সুপারিশপ্রাপ্ত হয়েছেন৷ নোয়াখালী জেলার ,সদর উপজেলার নোয়াখালী পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ডের সাবেক বাসিন্দা মরহুম মোস্তফা কামাল ও মরহুমা রৌশন আরা বেগমের গর্বিত সন্তান ফজলুর রহমান মামুন। নোয়াখালী জিলা স্কুল থেকে ২০০৯ সালে এসএসসি ও ২০১১ সালে নোয়াখালী সরকারী কলেজ থেকে এইচএসসি

কৃতিত্বের সাথে পাস করে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদ বিজ্ঞান বিভাগে ভর্তি হন। জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৭ সালে উচ্চশিক্ষা সম্পন্ন করে দ্রুততর সময়ের মধ্যে সরকারি চাকরীর অগ্নি যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েন৷ মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান মামুন ছোট বেলা থেকে অত্যন্ত মেধাবী ছাত্র হিসাবে এলাকায় সুপরিচিতি ছিলেন।বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে বিভাগীয় পড়াশোনার পাশাপাশি মোটামুটি সক্রিয় ছিলেন উদীচি ,ডিবেটিং সোসাইটি, জাতিসংঘ ছায়া সংসদের মত সংগঠননের সাথে৷ ৷এছাড়াও

জাগো ফাউন্ডেশনের সাথে সুবিধা বঞ্চিত পথ শিশুদের শিক্ষা নিয়ে কাজ করেছেন৷ নিজের অভাবিত সাফল্যের বিষয়ে মামুন বলেন- ‘আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের কাছে অনেক শুকরিয়া ৷ তিনি আমাকে বিসিএসের মত তীব্র প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় সফলতার সাথে প্রতিটি ধাপ শেষ করার সুযোগ দিয়েছেন৷আমার মরহুম আব্বা-আম্মার আমৃত্যু ত্যাগ,পরিশ্রম ও সাধনার জন্য আজকের সাফল্য৷ বাবা চেয়েছিলেন সরকারী কর্মকর্তা হয়ে দেশের সেবা করি৷ দীর্ঘ পথচলায় পরিবারের সব সদস্য অপরিসীম

স্নেহ,মমতা ও সাহস দিয়েছে যা অতুলনীয়৷ বিশেষ করে, আমার পিতৃতুল্য শ্রদ্ধেয় বড় ভাই আব্বা-আম্মার মৃত্যুর পর তাঁর সামর্থ্যের সবটুকু উজাড় করে দিয়েছেন আমার জন্য৷ সোনাপুর পৌর বাজারের ব্যবসায়ী বড় ভাই ‘এনাম কবির আরমানের’ অনুপ্রেরণা কথা কৃতজ্ঞ চিত্তে স্মরণ করেন তিনি৷ “জনগণের করের টাকায় সরকারি স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চ ডিগ্রি নিয়েছি৷ সেই গণমানুষের সেবা করার ব্রত নিয়ে সিভিল সার্ভিসে নিজের সবটুকু উজাড় করে দিতে চাই,যোগ করেন

ফজলুর রহমান মামুন৷ ভবিষ্যতে যারা বিসিএস ক্যাডার হতে চায় তাদের জন্য পরামর্শ হিসেবে মামুন বলেন – “আসলে আমার পরামর্শ থাকবে জনগণকে ভালোবাসার মানসিকতা থেকে ,দেশকে কিছু দেওয়ার মানসিকতা থেকে সরকারি চাকরীর জন্য পড়াশুনা করতে হবে৷ আর, প্রস্তুতির ক্ষেত্রে পড়াশুনায় একাগ্রতা,ধৈর্য ও সহনশীলতা নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন৷ গতানুগতিক ধারার বাইরে গিয়ে নিজেকে যোগ্যতর করে গড়ে তুলতে হবে প্রথম থেকে তুলতে হবে৷ আর যে কোন

চাকরীর প্রস্তুতি পড়াশোনা শেষ করেই নেওয়া ভালো৷ তবে অনেক বেশি করে চাইলে, বিশ্ববিদ্যালয় চতুর্থ বর্ষ থেকে প্রস্তুতি নিতে পারে৷ বিষয়ভেদে সবচেয়ে বেশী গুরুত্ব দিতে হবে ইংরেজি , গনিতে এবং তথ্য প্রযুক্তিতে । চাকরী প্রার্থীদের সাম্প্রতিক ঘটনা প্রবাহের বিষয়ে তীক্ষ্ণ নজর রাখার জন্য বলেন৷ জননেত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০৪১ পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য দক্ষ তথ্য প্রযুক্তি জ্ঞান সম্পন্ন কর্মকর্তা প্রয়োজন৷ বর্তমানে বাংলাদেশ তথ্য প্রযুক্তিতে অনেক এগিয়ে যাচ্ছে । তাই, তথ্য প্রযুক্তি নিয়েও ভালো জ্ঞান রাখতে হবে৷ উল্লেখ্য, অদ্য ৩০শে জুন মঙ্গলবার বিকালে ৩৮তম বিসিএস পরীক্ষার চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)।

About khan

Check Also

কাতার প্রবাসে থেকেও বিসিএস ক্যাডার হলেন সুলতানা

ময়মনসিংহের আনন্দ মোহন কলেজের শিক্ষার্থী রহিমা সুলতানা। তিন ভাই ছয় বোনের মধ্যে সুলতানা পঞ্চম। বাবা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *