Saturday , June 12 2021
Breaking News
Home / Exception / নিজে ৬ ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকে স্ত্রীকে ঘুমানোর সুযোগ করে দিলেন স্বামী!

নিজে ৬ ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকে স্ত্রীকে ঘুমানোর সুযোগ করে দিলেন স্বামী!

ভালোবাসা দেখাতে গিয়ে প্লেনে ৬ ঘণ্টা নিজে দাঁড়িয়ে থেকে স্ত্রীকে ঘু’মানোর সুযোগ করে দিয়ে আলোচনা-সমালোচনায় স্বামী। এমন একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল।

ডেইলি মেইলের সেই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্লেনের মধ্যে স্ত্রীকে ঘু’মাতে দেওয়া সেই স্বামীর ঘটনাটি টুইট করেন যুক্তরাষ্ট্রের ইন্ডিয়ানার প্র’শিক্ষক কোর্টনি লি জনসন। তার সেই টুইটকে কেন্দ্র করেই ঘটনার পক্ষে বিপক্ষে নানা ধরনের মন্তব্যের ঝড় বইছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

কোর্টনি জানান, দীর্ঘ ফ্লাইটে অ’জ্ঞাত এই ব্যক্তি পুরো ছয় ঘণ্টা দাঁড়িয়ে ছিলেন। তার স্ত্রী তিনটি আসন জুড়ে ঘু’মিয়ে পড়ায় তাকে না ডেকে লোকটি দাঁড়িয়ে ছিলেন ছয় ঘণ্টা। তিনি ঘটনাটিকে স্ত্রীর প্রতি স্বামীর সত্য ভালোবাসা বলে উল্লেখ করেছেন।

এই ঘটনার সমালোচনা করেছেন অনেকে। কেউ কেউ লোকটিকে ‘বেত্রাঘা’ত’ করা উচিত বলে মন্তব্য করে তার স্ত্রীকে ‘স্বার্থপর বলেছেন। অনেকে আবার সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। এটি ফেক নিউজ বলে জানিয়ে তারা বলেন, প্লেনে এভাবে দাঁড়িয়ে থাকতে দিবে না কর্তৃপক্ষ।

একজন বলেছেন, এটাই যদি ভালোবাসার নমুনা হয় তাহলে আমি একাই থাকবো, আমার ভালোবাসার দরকার নেই। কেউ কেউ বলেছেন, লোকটি সিটে বসে তার কোলে মাথা রেখে স্ত্রীকে ঘু’মানোর সুযোগ দিতে পারতেন। তারা বলেন, লোকটি ‘নির্বোধ’ কিন্তু ‘সরল’ মনের মানুষ।

অনেকে আবার একে বিখ্যাত চলচিত্র টাইটানিকের রোজ এবং ক্যাটের প্রেমের সঙ্গে তুলনা করেছেন। রোজের জীবন বাঁচাতে ক্যাট বরফজমা আট’লান্টিক সাগরে প্রাণ দিয়েছেন যেভাবে, এখানে স্ত্রীর ঘু’মানোর জন্য লোকটিও সেভাবে অনেক কষ্ট করেছেন। তারা ঘটনাটিকে টাইটানিক-২ বলে অ’ভিহিত করেছেন।

অনেকে আবার বিষয়টি নিয়ে মজাও করেছেন। কেউ বলেছেন, এরা স্বামী-স্ত্রী নন, কারণ লোকটির হাতে কোন আংটি নেই। কেউ কেউ বলেছেন, দীর্ঘ ছয় ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকে লোকটি স্ত্রীকে তালাক দেয়ার পরিকল্পনা করছিলেন!

About khan

Check Also

সুন্দরী যুবতীর পো-শাক টে-নে স্ত-নে মুখ ও হাত দিলো বাঁদর, বে-কা-য়দায় প-ড়ে গেলেন যুবতী, ভাইরাল ভিডিও!

আম’রা প্রত্যেকেই চাই যে আমা’দের নিত্যদিনের জীবনযাত্রা একটু ভিন্ন মাত্রায় স্বাদ আনতে এবং এই ভিন্ন ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *