Friday , June 25 2021
Breaking News
Home / Lifestyle / ঘরে তুলসী গাছ রেখেছেন? এই ১০টি জিনিস মাথায় রাখুন

ঘরে তুলসী গাছ রেখেছেন? এই ১০টি জিনিস মাথায় রাখুন

শাস্ত্রে বলা আছে, তুলসীগাছ থাকলে মৃত্যুর দেবতা যমরাজও নাকি ঘরে ঢুকতে পারেন না! শাস্ত্রে যদি অবিশ্বাসও থাকে, তা-ও শুধু ভেষজ গুণের জন্য আপনি বাড়িতে একটি তুলসীগাছ রাখতে পারেন। বাস্তুর দিক থেকেও তুলসীর গুরুত্ব কম নয়। তাই ঘরে তুলসী গাছ রাখলে সংসারের শুভ-অশুভ মাথায় রেখে কিছু নিয়ম মেনে চলা উচিত।

১. বাস্তু মতে, বাড়িতে বা বারান্দায় তুলসী রাখলে উত্তর বা উত্তর-পূর্ব দিকে রাখুন।

২. শিবলিঙ্গে বা শিবের পুজোয় তুলসী লাগে না। পৌরাণিক আখ্যান অনুযায়ী দানব শঙ্খচূড়ের স্ত্রী হল তুলসী। এই শঙ্খচূড় শিবের হাতেই প্রাণ হারিয়েছিল। ফলে, শিবের পুজোয় তুলসী দেওয়ার কোনও মানে নেই।

৩. রবিবার বা কোনও একাদশীর দিন গাছ থেকে তুলসীর পাতা ছিঁড়বেন না। এমনকী সূর্য বা চন্দ্রগ্রহণের সময়ও নয়। এটা অশুভ।

৪. তুলসী গাছ শুকিয়ে বা মরে গেলে তুলে যেখানে সেখানে ফেলবেন না। নদী বা পুকুরে ফেলুন। বাড়িতে বা বাগানে মরা তুলসী গাছ রাখা সংসারের জন্য অশুভ। মরা গাছ সরিয়ে তুলসীর নতুন চারা বসান।

৫. তুলসীকে আমরা স্ত্রী গাছ হিসেবে দেখি। এটা খেয়াল রাখবেন তুলসী গাছের পাশেই যেন না ক্যাকটাস বা কাঁটাজাতীয় গাছ থাকে। তাতে সংসারে অশান্তি বাড়ে। সুস্বাস্থ্য ও সংসারে সুখশান্তি চাইলে তুলসীগাছের দু-পাশে কাঁটা নেই এমন ফুলের গাছ রাখুন।

৬. মনে রাখবেন তুলসী হল অক্সিজেনের ‘শক্তিঘর’। দিনে একবার অন্তত তুলসীগাছের সামনে এসে প্রাণভরে শ্বাস নিন। শরীরের ভিতরে কোনও সংক্রমণ থাকলে, দূর হবে। ঘরে তুলসী রাখলে রোজ সকালে পুজো করতে ভুলবেন না। সন্ধ্যায় তুলসীতলায় প্রদীপ বা মোমবাতি জ্বালিয়ে আসবেন।

৭. ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে দিনে অন্তত দুটো করে তুলসীর পাতা খান।

৮. মনে রাখবেন তুলসীর পাতা চিবিয়ে না খাওয়াই ভালো। তুলসীপাতা পারলে গিলে নিন। কারণ, মার্কারির মতো কিছু যৌগ রয়েছে। এই মার্কারি দাঁতের জন্য খুবই ক্ষতিকারক।

৯. বাতাস শুদ্ধ করার পাশাপাশি তুলসী ঘরের নানা দোষও কাটায়। পজিটিভ এনার্জির জোগান দেয়।

১০. কখনোই তুলসীগাছের পাশে ঘর মোছার ন্যাতা, ঝাঁটা বা অন্য নোংরা কিছু রাখবেন না

About khan

Check Also

চোখের নিচের কালো দাগ দূর করুন মাত্র ১০ মিনিটে

চোখের নিচে কালো দাগ পড়লে আপনার সুন্দর মুখটাকে রোগাটে দেখায়। আর বয়সও বাড়িয়ে দিয়েছে অনেকটা। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *