Tuesday , May 11 2021
Breaking News
Home / Lifestyle / আর্থিক ও শারীরিক সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে নিয়ম মেনে পুজো করুন হনুমানজির

আর্থিক ও শারীরিক সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে নিয়ম মেনে পুজো করুন হনুমানজির

আর্থিক ও শারীরিক সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে নিয়ম মেনে পুজো করুন হনুমানজির

সকল ব্যক্তির জীবনেই কিছু না কিছু সমস্যা লেগে থাকে। বলতে গেলে প্রায় সকল মানুষই কোনো না সমস্যাই জর্জরিত।পৃথিবীতে এমন কোনো ব্যক্তিকে খুঁজে পাওয়া সত্যিই মুশকিল যার জীবনে কোনো সমস্যা নেই। আর যে সমস্ত ব্যক্তির জীবনে আর্থিক সমস্যা থাকে। তারা তাদের যথাসম্ভব চেষ্টাও করে থাকে তাদের আর্থিক সমস্যা নিবারনের জন্য। সে দিনরাত যথাসাধ্য চেষ্টা চালিয়ে যায়, কঠোরতম পরিশ্রম করে থাকে এই অর্থ উপার্জনের জন্য।

কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে দেখা গেছে যে ব্যক্তি তার যথাসম্ভব প্রচেষ্টার পরেও অর্থ উপার্জনে সফলতা অর্জন করতে অক্ষম থাকেন। এত কঠোর পরিশ্রম করা সত্ত্বেও তার জীবন থেকে আর্থিক সমস্যা দূর হয় না।আর শাস্ত্রানুযায়ী এইসব ঘটনার পেছনে মুখ্য কারণটি হচ্ছে বাস্তু দোষ। কখনো কখনো গৃহের বাস্তু দোষবশত আপনি আপনার পরিশ্রমের সঠিক ফল অর্জন করতে পারেন না।তাই সবার আগে আপনার বাস্তুদোষকে কাটান। যদি আপনি আপনার বাস্তু দোষ কে দূর করতে পারেন তবে আপনার আর্থিক সমস্যাও খুব শীঘ্রই দূর হয়ে যাবে।

আজ আমরা আজকের এই বিশেষ প্রতিবেদনের মাধ্যমে আপনাদের এমন কিছু উপায় সম্বন্ধে আলোচনা করবো যার কারনে আপনার গৃহের বাস্তুদোষ থাকলে তা দূর হয়ে যাবে এবং আপনি আপনার জীবনেও উন্নতি লাভ করবেন।পাশাপাশি আপনার জীবনের থাকা আর্থিক সমস্যারও নিবৃত্তি ঘটবে। চলুন তাহলে আর দেরি না করে জেনে নেওয়া যাক এই উপায় গুলি সম্বন্ধে বিস্তারিতভাবে:- এ ক্ষেত্রে বলা হচ্ছে যদি আপনি আপনার গৃহে ভগবান বাস্তু,ধন কুবের এবং মালক্ষ্মীর প্রতিমা রেখে থাকেন এবং নিয়মিতভাবে প্রতিদিন ভক্তিভরে পূজা অর্চনা করেন করেন তাহলে এর ফলে আপনার জীবনে আর কখনো আর্থিক সমস্যা ঘটবে না।

আপনি আপনার গৃহে মহাবলী হনুমানজির পঞ্চমুখী প্রতিমা অথবা ছবি লাগান।তবে খেয়াল রাখবেন এই প্রতিমা অথবা ছবিটি যেন ঘরের দক্ষিণ-পশ্চিমে লাগানো হয়। আর নিয়মিতভাবে এর পূজা অর্চনা করে যান।যদি আপনি এই উপায়টি করে থাকেন তবে ধন সম্বন্ধিত সমস্যা থেকে অতি শীঘ্রই মুক্তি পেয়ে যাবেন। আপনি হয়তো জীবনে ঋণের সমস্যায় ভুগছেন এবং শত প্রচেষ্টার চালিয়েও এই ঋণ থেকে নিবৃত্তি পেতে পারছেন না। তবে এর থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য চিনি অথবা আটা পিঁপড়েকে দিন।

যদি আপনি এই সহজ উপায়টি ব্যক্তিগত জীবনে ব্যবহার করে থাকেন তো আপনি খুব শীঘ্রই ঋণ থেকে নিষ্কৃতি পেতে পারবেন।পাশাপাশি আপনি খুশি খুশিতে নিজের জীবন অতিবাহিত করতে পারবেন। আপনি ২৫০ গ্রাম কালো তিল এর সাথে ১৫০ গ্রাম অহড়ের ডাল মিশিয়ে এর আটা মেখে নিন।আর প্রতি মঙ্গলবার নিয়মকরে এই আটা দিয়ে একটি প্রদীপ বানান এবং সরষের তেল ঢেলে এই প্রদীপ জ্বালান।আপনার তৈরি এই প্রদীপটিকে আপনি আপনার গৃহের হনুমানজির সামনে অথবা কোন হনুমান মন্দিরে গিয়ে তার মূর্তির সামনে জ্বালাতে পারেন।

তবে এ ক্ষেত্রে একটি বিশেষ দিকে লক্ষ্য রাখবেন, সেটি হচ্ছে আপনাকে শুধু লক্ষ্য রাখতে হবে যে প্রতি মঙ্গলবার প্রদীপের সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে এবং ১১ টি মঙ্গলবার পর্যন্ত এটি আপনাকে করতে হবে।এটি করলে আপনি আপনার আর্থিক সমস্যা থেকে নিবৃত্তি পাবেন।বাস্তু শাস্ত্র অনুসারে আপনি যদি মাটির একটি ছোট্ট কলসে জল ভরে উত্তর দিশাতে কলস টিকে রেখে দেন তাহলে এই উপায়টি করার জন্য আপনার গৃহের বাস্তু ঠিকঠাক থাকবে।

পাশাপাশি আপনার আমদানির উৎসের বৃদ্ধি প্রাপ্তি ঘটবে।আর এই উপায়টি নিয়মিত করলে আপনার পরিবারের সমস্ত সদস্যর উন্নতি ঘটবে এবং আপনার জীবনের থাকা আর্থিক সমস্যারও নিবৃত্তি ঘটবে।ভালো থাকুন পোস্টটি শেয়ার করে সকলকে ভালো থাকতে সাহায্য করুন।

About khan

Check Also

শিখে নিন কিভাবে একটা পারফেক্ট তরমুজ বেছে নিবেন

তরমুজ ভালবাসে না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া দুষ্কর। আম’রা সবাই এই রসালো, সুস্বাদু এবং প্রা’ণজুড়ানো ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *